সুকন্যা ভ্রু নাচিয়ে জিজ্ঞেস করে-‘কোথায় চললেন?’

ইন্দ্রজিৎ সরকার 

সুকন্যা ভ্রু নাচিয়ে জিজ্ঞেস করে-‘কোথায় চললেন?’
ইকবাল হেসে বলে-‘অগস্ত্যযাত্রায়।’
-‘দূর, আপনি শুধু কঠিন কঠিন কথা বলেন। কিছু সহজ-সরল ভালোলাগা বিষয় নিয়েও তো কথা বলতে পারেন।’
-‘ঠিক আছে, এখন থেকে তাই হবে।’
সুকন্যা চায়ের পানি তুলে দেয় চুলায়। তারপর বলে-‘কী হলো, চুপ করে গেলেন যে?’
-‘ভাবছি কী নিয়ে কথা বলা যায়।’
-‘সেটা নিয়েও ভাবতে হয়? আপনি একটা ইয়ে।’
হঠাৎ মনে পড়ে গেছে এমন ভঙিতে ইকবাল জানতে চায়-‘আচ্ছা, বিয়ের আগে কারও সঙ্গে আপনার প্রেম ছিল না?’
সুকন্যা চোখ পাকিয়ে বলে-‘এটা বুঝি কোনো ভালো কথা হলো?’
-‘হ্যাঁ, এটা তো ভালোবাসারই কথা। নাকি বলতে চান না?’
-‘বলা তো উচিতই নয়। আপনি একজন বিবাহিত নারীকে তার আগের জীবনের প্রেমের কথা জিজ্ঞেস করছেন!’
-‘ঠিক আছে, ইচ্ছে না হলে বলবেন না।’
-‘আচ্ছা বলছি। কারও সঙ্গেই আমার কোনো প্রেম ছিল না।’
-‘একেবারেই বিশ্বাসযোগ্য কথা হলো না। মিথ্যে বললেও একটু সাজিয়ে-গুছিয়ে বলতে হয়।’
-‘আপনার ধারণা আমি মিথ্যে বলছি? সত্যি প্রেম করা হয়ে ওঠেনি। ভেবেছিলাম বিয়ের পর বরের সঙ্গে জমিয়ে প্রেম করব।’ ব্যাখ্যা দেয় সুকন্যা।
-‘বাহ্, খুব ভালো পরিকল্পনা। তা প্রেম জমেছে?’
সুকন্যার মুখটা হঠাৎ বিষন্নতার মেঘে ছেয়ে যায়। তবে পরক্ষণেই জোর করে হাসে। ইকবালকে বলে-‘বরফ জমতে হলে একটা নির্দিষ্ট তাপমাত্রা দরকার হয় জানেন তো? নইলে কিন্তু তা পানিই থেকে যায়।’
-‘কঠিন কথা নাকি শুধু আমিই বলি। ছিলাম প্রেমে, এলাম হিমে। কথা হলো, এত তাপমাত্রা মেপে প্রেম করতে যাওয়া তো মুশকিল।’
-‘আপনার কি মনে হয়, প্রেম খুব সস্তা কিছু? সে খুব স্পর্শকাতর বিষয়। উপযুক্ত আলো-হাওয়া না পেলে বাঁচে না।’

[‘এইসব কাছে আসা’ উপন্যাস থেকে]

One thought on “সুকন্যা ভ্রু নাচিয়ে জিজ্ঞেস করে-‘কোথায় চললেন?’

  • October 13, 2019 at 12:39 pm
    Permalink

    Hi, very nice website, cheers!
    ——————————————————
    Need cheap and reliable hosting? Our shared plans start at $10 for an year and VPS plans for $6/Mo.
    ——————————————————
    Check here: https://www.good-webhosting.com/

Leave a Reply

Your email address will not be published.