এমদাদকে হত্যার হুমকি ক্র্যাবের নিন্দা

ক্র্যাবের নিন্দা

বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স এসোসিয়েশনের (ক্র্যাব) সাবেক কার্যনির্বাহী সদস্য ও বাংলাদেশের খবর পত্রিকার সিনিয়র রিপোর্টার মোঃ এমদাদুল হক খানের সঙ্গে অসৌজন্যমূলক আচরণ ও মেরে ফেলার হুমকির ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়ে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে ক্র্যাব কার্যনির্বাহী কমিটি। অবিলম্বে জড়িত হুমকিদাতাদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছেন নেতৃবৃন্দ।

গত ১৬ মার্চ তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তরের একটি দরপত্রের অনিয়মরে বিষয়ে সংবাদ সংগ্রহের জন্য ওই অধিদপ্তরের পরিচালক (অর্থ ও প্রশাসন) মুশাররাত জেবীনের কক্ষে যান এমদাদ। এসময় মুশাররাত সহকারী প্রোগ্রামার সৈয়দ মাহফুজ মাহমুদ ইসিতয়াক আহমেদকে তার কক্ষে ডেকে আনেন। এরপর দু’জনে মিলে এমদাদকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন এবং মেরে ফেলার হুমকি দেন।
মুশাররাত জেবীন এমদাদকে হুমকি দিয়ে বলেন, আপনার বউ-বাচ্চা আছে না? তাদের কথা ভাবেন। অন্যের দুর্নীতি খুঁজে লাভ নেই। বেশি বারাবারি করলে বিপদে পড়বেন। অযথা নিজের বিপদ ডেকে আনবেন না। এ সময় এমদাদকে নিরাপত্তাকর্মী ডেকে আটক রাখার হুমকি দেন তিনি।
সহকারী প্রোগ্রামার সৈয়দ মাহফুজ মাহমুদ ইসিতয়াক আহমেদ হুমকি দিয়ে বলেন, এসব নিয়ে রিপোর্ট করে কোনো লাভ হবে না। উপরোন্ত আপনি বিপদে পড়বেন। শুধু শুধু নিজের বিপদ ডেকে এনে লাভ কী? আপনিও ভালো থাকুন, আমাদেরও ভালো থাকতে দিন। এ ঘটনায় গতকাল মঙ্গলবার শেরে-বাংলা নগর থানা একটি জিডি করেছেন এমদাদ। যার নম্বর-৯০১।

ক্র্যাব সভাপতি আবুল খায়ের ও সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান বিকু এক বিবৃতিতে ঘটনার নিন্দা জানিয়ে বলেন, একজন পেশাদার সাংবাদিকদে তথ্য না দিয়ে উল্টো তাকে হেনস্তা ও অসৌজন্যমূলক আচরণ এবং মেরে ফেলার হুমকির ঘটনা অত্যন্ত নিন্দনীয়। বিষয়টি উদ্বেগের। যা আমাদের কাম্য নয়। ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে দোষীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহ্বান জানান নেতৃবৃন্দ।